রবিবার, ৭ই মার্চ, ২০২১ ইং, ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
রবিবার, ৭ই মার্চ, ২০২১ ইং, ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
রবিবার, ৭ই মার্চ, ২০২১ ইং

অমানবিক, নির্দয় সরকার থাকার কারণে বিচারবহির্ভূত হত্যা হচ্ছে: রিজভী

অমানবিক, নির্দয় সরকার থাকার কারণে বিচারবহির্ভূত হত্যা হচ্ছে: রিজভী

একটা অমানবিক ও নির্দয় সরকার থাকার কারণে বিচারবহির্ভূত হত্যা তীব্র আকার ধারণ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বগুড়া শহর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও জেলা বিএনপির সদস্য ওমর ফারুক ও বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিন শওকতের স্ত্রী দিলরুবা শাহিন ক্যান্সার ও কারোনায় আক্রান্ত হয়ে় ইন্তেকাল করায় তাদের পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ শেষে আজ সোমবার তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে দুই পরিবারের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তিনি।

রুহুল কবির রিজভী বলেন,অমানবিক ও নির্দয় সরকার থাকার কারণে বিচারবহির্ভূত হত্যার তীব্র আকার ধারণ করছে। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নাই। প্রাকৃতিক মহামারী করোনার আঘাতে জীবন আরো দুর্বিষহ আকার ধারণ করছে। কারণ যারা দিনের ভোট রাতে করে, ভোট কেন্দ্রে মানুষকে আসতে দেয় না, গণতন্ত্রিক অধিকার কেড়ে নেয় তাদের পক্ষে এটাই সম্ভব। মানুষের মৃত্যু ও লাশের উপর দিয়ে তারা রাজত্ব কায়েম করতে চায়। আজকে গোটা দেশ গোরস্থানে পরিণত হয়েছে। এইরকম অরাজক পরিস্থিতি চলতে পারে না।

চামড়া শিল্পকে ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, কুরবানীর চামড়া মানুষ এতিমখানায় দেয়। এই চামড়া বিক্রি করে এতিমদের খরচ চালানো হয়। আজকে এতিমদের হক মারা হয়েছে। চামড়া কোন মূল্য নাই। পথে-ঘাটে চামড়া ফেলে দেওয়া হচ্ছে। চামড়া শিল্পকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। এইরকম অরাজকতা নৈরাজ্যের মধ্যে দেশ চলছে।ব্যর্থ সরকারের পতন না হলে মানুষের মুক্তি মিলবে না। তাই মানুষের জানমালের নিরাপত্তা জন্য সকলের উচিত ঐক্যবদ্ধভাবে এই অবৈধ সরকারের পতন ঘটানো।

তিনি বলেন, গুম খুন ক্রসফায়ার অব্যাহত রয়েছে। টেকনাফের সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনা সাহেবকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। কিসের জন্য এ হত্যা। তারা যে কথা বলছে তার সত্যতা কতটুকু তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, সরকারি ব্যর্থতার কারণে সুচিকিৎসা মানুষ পাচ্ছে না। সুচিকিৎসা না পাওয়ায় ফারুকের মতো তরুণ নেতা,দিলরুবা মতো নারীনেত্রী অকালে প্রাণ হারালো। আমি মনে করি চারোদিকে অন্যায় অরাজক পরিস্থিতির কারণে সাধারণ মানুষসহ বিএনপির অনেক নেতা কর্মী মারা গেছেন। হাসপাতালে সিট নেই, অক্সিজেন নেই, ভেন্টিলেটর নেই। তাহলে সরকার কি দিয়ে করোনা মোকাবেলা করছে। করোনা মোকাবেলায় সরকার অত্যন্ত নির্লজ্জভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।

শেয়ার করুন:Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email

মন্তব্য করুন

মন্তব্য